Archives for প্রবন্ধ সমুহ

আকীদা

আল্লাহর পথের পাথেয় (২)

আল্লাহর পথের পাথেয় (২) ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট  সৃষ্টির কল্যাণে রত থাকা ও হিংসামুক্ত কল্যাণ কামনা কুরআন-হাদীসের আলোকে আমরা দেখি যে, কিছু মানসিক বা দৈহিক কর্ম আছে যা অতি সহজে আমাদেরকে আল্লাহর নৈকট্য ও সাওয়াব লাভে সাহায্য করে। এ সকল কর্ম পালন করলে যাকির অতি অল্প আমলে অধিক সাওয়াব অর্জন করতে পারেন। আমাদের উচিত এগুলোর প্রতি লক্ষ্য রাখা। এজাতীয় কিছু কর্মের কথা আমরা ধারাবহিকভাবে আলোচনা করছি। আজ দ্বিতীয় পর্ব। সৃষ্টির কল্যাণে রত থাকা: আল্লাহর রহমত, বরকত ও সাওয়াব অর্জনের সহজতম পথ আল্লাহর সৃষ্টির প্রতি, বিশেষত মানুষের প্রতি কল্যাণ ও উপকারের...
বিস্তারিত
আকীদা

আল্লাহর পথের পাথেয় (১)

আল্লাহর পথের পাথেয় (১) জাগতিক জীবনের অস্থায়িত্ব স্মরণ ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট কুরআন-হাদীসের আলোকে আমরা দেখি যে, কিছু মানসিক বা দৈহিক কর্ম আছে যা অতি সহজে আমাদেরকে আল্লাহর নৈকট্য ও সাওয়াব লাভে সাহায্য করে। এ সকল কর্ম পালন করলে যাকির অতি অল্প আমলে অধিক সাওয়াব অর্জন করতে পারেন। আমাদের উচিত এগুলোর প্রতি লক্ষ্য রাখা। এজাতীয় কিছু কর্মের কথা আমরা ধারাবহিকভাবে কয়েকটি পর্বে আলোচনা করব। আজ প্রথম পর্ব। জাগতিক জীবনের অস্থায়িত্ব স্মরণ মানব জীবনে জাগতিক, সাংসারিক কর্মকাণ্ড, ব্যস্ততা ও চিন্তাভাবনা থাকবেই। আল্লাহ মানুষকে এসকল কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার জন্যই সৃষ্টি করেছেন। তবে...
বিস্তারিত
প্রবন্ধ সমুহ

কুরআন-সুন্নাহর আলোকে জামাআত ও ঐক্য

কুরআন-সুন্নাহর আলোকে জামাআত ও ঐক্য ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ প্রশংসা মহান আল্লাহর নিমিত্ত। সালাত ও সালাম মুহাম্মাদ (সা.), তাঁর পরিজন-অনুসারী ও সহচরগণের জন্য। উম্মাতের ঐক্য ও ঐক্যের আহ্বান বিষয়টি আমারা অনেকেই বিভিন্ন আঙ্গিকে আলোচনা করে থাকি। এ প্রসঙ্গে নিম্নের সংক্ষিপ্ত কয়েকটি বিষয়ের প্রতি আমি আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। ১. জামাআত: কুরআন-সুন্নাহ নির্দেশিত অন্যতম ইবাদত ঐক্য বুঝাতে আরবীতে ‘ওয়াহদাহ’, ইত্তিহাদ, তাওহীদ ইত্যাদি শব্দ বহুল প্রচলিত। তবে এ অর্থে কুরআন ও হাদীসে ‘জামা‘আত’, জামী’ বা অনুরূপ ব্যবহার করা হয়েছে। আরবী (جمع) ‘জামঅ’ শব্দটির অর্থ একত্রিত করা। ‘একত্রিত’ অর্থেও ‘জাম্অ’, জামীঅ, মাজমু’ বা জামাআত শব্দ ব্যবহৃত হয়। (ইবন মানযূর,...
বিস্তারিত
প্রবন্ধ সমুহ

হিজরী নববর্ষ ও আশূরা (২)

হিজরী নববর্ষ ও আশূরা (২) ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট  সম্মানীত পাঠক মুহররম মাস এবং আশূরা সমাগত। হিজরী সন, মহররম মাস, আশুরা ইত্যাদী আমাদের ধর্মীয় জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ। এনিয়ে আমাদের দুই পর্বের বিশেষ আলোচনার আজ শেষ অংশ। রাসূলুল্লাহ সা.-এর আগমনের সময় সমগ্র বিশ্বের রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থা ছিল মূলত বংশতান্ত্রিক। রাষ্ট্রের মালিক রাজা। তার অন্যান্য সম্পদের মতই রাষ্ট্রের মালিকানাও লাভ করবে তার বংশধরেরা। রাজ্যের সকল সম্পদ-এর মত জনগণও রাজার মালিকানাধীন। রাজা নির্বাচন বা রাজ্যপরিচালনা বিষয়ে তাদের কোনো মতামত প্রকাশের সুযোগ বা অধিকার নেই। রাসূলুল্লাহ সা. সর্বপ্রথম একটি আধুনিক জনগণতান্ত্রিক পরামর্শ-ভিত্তিক রাষ্ট্রব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করেন।...
বিস্তারিত
প্রবন্ধ সমুহ

হিজরী নববর্ষ ও আশূরা (১)

হিজরী নববর্ষ ও আশূরা (১) সম্মানীত পাঠক মুহররম মাস এবং আশূরা সমাগত। হিজরী সন, মহররম মাস, আশূরা আমাদের ধর্মীয় জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ। এ নিয়ে আমাদের দুই পর্বের বিশেষ আলোচনার আজ ১ম অংশ। ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট মুর্হারাম মাস ইসলামী পঞ্জিকার প্রথম মাস। রাসূলুল্লাহ সা. সা.-এর সময়ে ও তার পূর্বে রোমান, পারসিয়ান ও অন্যান্য জাতির মধ্যে তাদের নিজস্ব ক্যালেন্ডার বা পঞ্জিকা প্রচলিত ছিল। আরবদের মধ্যে কোনো নির্ধারিত বর্ষ গণনা পদ্ধতি ছিল না। বিভিন্ন ঘটনার উপর নির্ভর করে তারিখ বলা হতো। যেমন, অমুক ঘটনার অত বৎসর পরে…। খলীফা উমারের (রা) খিলাফতের তৃতীয় বা...
বিস্তারিত
প্রবন্ধ সমুহ

বাহাস, বিতর্ক, ঝগড়া ও গবেষণা

বাহাস, বিতর্ক, ঝগড়া ও গবেষণা ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট  বাহাস বা ‘বহস’ শব্দটি আমাদের অতি পরিচিত একটি শব্দ। সাধারণভাবে আমাদের দেশের কাউকে এ শব্দের অর্থ জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলবেন, এর অর্থ ‘ধর্মীয় বিতর্ক’ বা ধার্মিকদের ঝগড়া। তবে মূল আরবীতে ‘বাহাস’ অর্থ ঝগড়া নয়, এর অর্থ ‘অনুসন্ধান’ বা গবেষণা। গবেষণা ও বিতর্কের মধ্যে পার্থক্য খুবই সুস্পষ্ট। গবেষণা অর্থ কোনো বিষয়ে সত্য বা সঠিক তথ্য জানার জন্য অনুসন্ধান করা। এক্ষেত্রে গবেষক, অনুসন্ধানকারী বা ‘বাহিস’-এর নিজস্ব কোনো মত বা সিদ্ধান্ত থাকে না। মত বা সিদ্ধান্ত থাকলে তো আর তিনি অনুসন্ধান করতেন না। বরং...
বিস্তারিত
গোনাহ

আল্লাহর পথের পথিকদের পাপ (৫)

আল্লাহর পথের পথিকদের পাপ (৫) প্রদর্শনেচ্ছা, ঝগড়া ও অন্যান্য ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট  আল্লাহর পথে চলতে সচেষ্ট ও ধর্ম-সচেতন অনেক মানুষ অনেক সময় এসব ইবাদত বিধ্বংসী পাপের মধ্যে লিপ্ত হয়ে যান। অনেক সচেতন মুসলিম ব্যভিচার, মিথ্যা, মদপান, সালাত বা সিয়াম পরিত্যাগ ইত্যাদি পাপে কখনোই লিপ্ত হন না। কখনো এরূপ কিছু করলে সকতরে তাওবা-ইসতিগফার করতে থাকেন। কিন্তু জেনে অথবা না জেনে তাঁরা র্শিক, কুফ্র, বিদ‘আত, হিংসা, অহঙ্কার, লোভ, আত্মতুষ্টি, গীবত ইত্যাদি পাপের মধ্যে লিপ্ত হচ্ছেন। এর কারণ, কোনো মানুষের ক্ষেত্রেই শয়তান কখনো নিরাশ হয় না। প্রত্যেক মানুষকেই কোনো না কোনোভাবে বিভ্রান্ত...
বিস্তারিত
গোনাহ

আল্লাহর পথের পথিকদের পাপ (৪)

আল্লাহর পথের পথিকদের পাপ (৪) ধার্মিক মানুষদের পতনের অন্যতম কারণ গীবত ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট আল্লাহর পথে চলতে সচেষ্ট ও ধর্ম-সচেতন অনেক মানুষ অনেক সময় এসব ইবাদত বিধ্বংসী পাপের মধ্যে লিপ্ত হয়ে যান। অনেক সচেতন মুসলিম ব্যভিচার, মিথ্যা, মদপান, সালাত বা সিয়াম পরিত্যাগ ইত্যাদি পাপে কখনোই লিপ্ত হন না। কখনো এরূপ কিছু করলে সকতরে তাওবা-ইসতিগফার করতে থাকেন। কিন্তু জেনে অথবা না জেনে তাঁরা র্শিক, কুফ্র, বিদ‘আত, হিংসা, অহঙ্কার, লোভ, আত্মতুষ্টি, গীবত ইত্যাদি পাপের মধ্যে লিপ্ত হচ্ছেন। এর কারণ, কোনো মানুষের ক্ষেত্রেই শয়তান কখনো নিরাশ হয় না। প্রত্যেক মানুষকেই কোনো না কোনোভাবে...
বিস্তারিত
ঈদ

সুন্নাহর আলোকে ঈদুল আযহা ও কুরবানী (২)

সুন্নাহর আলোকে ঈদুল আযহা ও কুরবানী (২) ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট প্রিয় পাঠক, পবিত্র ঈদুল আযহা ও কুরবানী আমাদের দরজায় কড়া নাড়ছে। তাই আমরা ঈদুল আযহা ও কুরবানীর বিষয়ে আলোচনা শুরু করেছি। দুই পর্বের আলোচনার আজ দ্বিতীয় ও শেষ পর্ব। কুরবানীর মূল বিষয় হলো উদ্দেশ্যের বিশুদ্ধতা। নিজের সম্পদের কিছু অংশ একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য বিলিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যে কুরবানী করলেই তা প্রকৃত কুরবানী। আল্লাহ বলেন: لَنْ يَنَالَ اللَّهَ لُحُومُهَا وَلا دِمَاؤُهَا وَلَكِنْ يَنَالُهُ التَّقْوَى مِنْكُمْ كَذَلِكَ سَخَّرَهَا لَكُمْ لِتُكَبِّرُوا اللَّهَ عَلَى مَا هَدَاكُمْ وَبَشِّرِ الْمُحْسِنِينَ “এগুলির- অর্থাৎ কুবরানীকৃত পশুগুলির গোশত বা রক্ত...
বিস্তারিত
ঈদ

সুন্নাহর আলোকে ঈদুল আযহা ও কুরবানী (১)

সুন্নাহর আলোকে ঈদুল আযহা ও কুরবানী (১) ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর অধ্যাপক, আল-হাদীস বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া চেয়ারম্যান, আস-সুন্নাহ ট্রাস্ট  প্রিয় পাঠক, পবিত্র ঈদুল আযহা ও কুরবানী আমাদের দরজায় কড়া নাড়ছে। আজকের প্রবন্ধে আমরা ঈদুল আযহা ও কুরবানীর বিষয়ে আলোচনা করব ইনশাআল্লাহ। দুই পর্বের আলোচনার এটা প্রথম পর্ব। যুলহাজ্জ মাসে ১০ তারিখে আমরা ঈদুল আযহার সালাত ও কুরবানী আদায় করি। ঈদ শব্দের অর্থ পুনরাগমণ। যে উৎসব বা পর্ব নির্ধারিত দিনে বা সময়ে প্রতি বৎসর ঘুরে ঘুরে আসে তাকে ঈদ বলা হয়। প্রতি সপ্তাহে জুমুআর দিনকে সপ্তাহিক ঈদ বলা হয়। হাদীস শরীফে রাসূলুল্লাহ সা. বলেছেন যে, মহান আল্লাহ আমাদেরকে বাৎসরিক ঈদ হিসেবে...
বিস্তারিত