(0181) আমরা অনেকেই কোরবানির পশুর ভুঁড়ির কোনও ভাগ কিন্তু মাংস ভাগের নিয়ম অনুযায়ী করি না ।। এইটা কতটা সঠিক।

(0181) উত্তর: প্রশ্নটি স্পষ্ট নয়। যদি এক পশুতে কয়েকজন ভাগে কুরবানী দেন তাহলে ভুঁড়িও সমান ভাগ করতে হবে। আর যদি গরীবদের জন্য দেয় ভাগ উদ্দেশ্যে হয় যতটা সম্ভব কুরবানীর গোশত-ভূড়ি গরীবদেরকে দিতে হবে। এক্ষেত্রে শরীয়ত আমাদেরকে কোন পরিমাণ নির্ধারণ করে দেয়নি। তবে আমারা যেভাবে বন্টন করি তা ভাল। সুতরাং ভুড়ির ভাগ মাংসের ভাগের মত না করলেও কোন সমস্যা নেই। এতে কুরবানীর কোন সমস্যা হবে না।  কুরবানী দ্বারা আমাদের উদ্দ্যেশ্য হতে হবে একমাত্র আল্লাহ তায়ালাকে খুশি করা।উত্তর: প্রশ্নটি স্পষ্ট নয়। যদি এক পশুতে কয়েকজন ভাগে কুরবানী দেন তাহলে ভুঁড়িও সমান ভাগ করতে হবে। আর যদি গরীবদের জন্য দেয় ভাগ উদ্দেশ্যে হয় যতটা সম্ভব কুরবানীর গোশত-ভূড়ি গরীবদেরকে দিতে হবে। এক্ষেত্রে শরীয়ত আমাদেরকে কোন পরিমাণ নির্ধারণ করে দেয়নি। তবে আমারা যেভাবে বন্টন করি তা ভাল। সুতরাং ভুড়ির ভাগ মাংসের ভাগের মত না করলেও কোন সমস্যা নেই। এতে কুরবানীর কোন সমস্যা হবে না।  কুরবানী দ্বারা আমাদের উদ্দ্যেশ্য হতে হবে একমাত্র আল্লাহ তায়ালাকে খুশি করা।