উত্তর: ওয়া আলাইকুমুস সালাম। যদি হিন্দু নামের মধ্যে শিরক জাতীয় কোন কিছু না থাকে তাহলে উক্ত নাম রেখে দেওয়া জাযেজ হবে। যেমন নিমাই, দুলাল, বাবু, শিমুল। আর যদি শিরক জাতীয় কোন কিছু থাকে তাহলে জায়েজ হবে না। যেমন কৃষ্ণ দাস। এই অবস্থায় পাসপোর্টে নাম বদল করা সম্ভন না হলেও নিজেদের ভিতর তাকে একটি ভাল নামে পরিচিত হতে হবে। বর্তমানে ইহুদী ও খৃষ্টানদের মাঝেও খাৎনা চালু আছে, বিশেষ করে ইহুদীদের মাঝে। তাই স্থানীয় যে কোন হাসপাতালে গিয়ে খাৎনা করানো যাবে।